• India India
  • Date 9th February, 2023

24x7 Online News Portal in Bengali| News Hut

Copy By anandabazar patrika

অনাস্থা ভোট ঘিরে অগ্নিগর্ভ বনগাঁ

অনাস্থা ভোট ঘিরে অগ্নিগর্ভ বনগাঁ

By Dibyendu - 16th July, 2019

www.webhub.academy

অনাস্থা ভোট ঘিরে ধুন্ধুমার বনগাঁ পুরসভা এলাকা। ভাঙচুর, বোমাবাজি, লাঠিচার্জ ঘিরে কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় পুরসভা ও তার আশপাশের এলাকা। তৃণমূলের দাবি, আস্থা ভোটে জয় পেয়ে বোর্ড দখলে রাখতে পেরেছে তারা। অন্য দিকে, বিজেপির দাবি, আস্থা ভোটে তৃণমূলকে হারিয়ে তাদেরই জয় হয়েছে। দু’পক্ষই পুরসভা দখলের দাবি করায় রাজনৈতিক উত্তেজনা যেমন চরমে, তেমনই ব্যাপক গন্ডগোলের পরিস্থিতি কার্যত পুলিশ প্রশাসনের হাতের বাইরে চলে যায়।

আস্থা ভোট ঘিরে মঙ্গলবার সকাল থেকেই ছিল টানটান উত্তেজনা। বিতর্কের সূত্রপাত তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া দুই কাউন্সিলরকে ঘিরে। হিমাদ্রি মণ্ডল ও কার্তিক মণ্ডলের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা ছিল। হাইকোর্ট এক নির্দেশে জানায়, আগামী ৭ দিন তাঁদের গ্রেফতার করা যাবে না। সেই নির্দেশ নিয়ে এ দিন পুরসভা চত্বরে গেলেও পুলিশ তাঁদের ভিতরে ঢুকতে দেয়নি বলে অভিযোগ বিজেপির। জানানো হয়, নির্দেশের লিখিত নথি লাগবে। এই নিয়েই ক্ষুব্ধ বিজেপি সমর্থকরা ব্যাপক উত্তেজনা শুরু করেন। পরে যদিও তাঁরা ওই নির্দেশের প্রতিলিপি নিয়ে জমা দেন।

২২ আসনের বনগাঁ পুরসভা ছিল তৃণমূলের দখলে। কাউন্সিলরের সংখ্যা ছিল ২০। এক জন করে কাউন্সিলর ছিল সিপিএম এবং কংগ্রেসের। কিন্তু সম্প্রতি ১৪ জন কাউন্সিলর তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন। তার মধ্যে অবশ্য পরে তিন জন ফিরেও যান তৃণমূলে। অর্থাৎনতুন সমীকরণ দাঁড়ায় বিজেপি ১১, তৃণমূল ৯, কংগ্রেস ১, সিপিএম ১।

এই পরিস্থিতিতেই পুরসভার চেয়ারম্যান শঙ্কর আঢ্যর বিরুদ্ধে অনাস্থা আনেন বিজেপিতে যোগ দেওয়া কাউন্সিলররা। সেই অনাস্থার ভোটাভুটি ছিল মঙ্গলবার। কিন্তু বিজেপিতে যোগ দেওয়া এবং অনাস্থার এই মধ্যবর্তী সময়ে দুই কাউন্সিলর হিমাদ্রি মণ্ডল ও কার্তিক মণ্ডলের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা দায়ের হয়। সেই মামলাতেই কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশনামা নিয়ে এ দিন বনগাঁ পুরসভার বাইরে হাজির হন হিমাদ্রি এবং কার্তিক। কিন্তু পুলিশ প্রাথমিক ভাবে তাঁদের পুরভবনের ভিতরে ঢুকতে দেয়নি।

অন্য দিকে, বিজেপির ৯ কাউন্সিলর পুরভবনের ভিতরে ঢুকলেও তাঁরা অনাস্থার ভোটাভুটি যে কক্ষে নেওয়ার কথা, সেখানে ঢোকেননি। তাঁদের বক্তব্য, দলের দুই কাউন্সিলর হিমাদ্রি ও কার্তিকের জন্য জন্য তাঁরা অপেক্ষা করছিলেন। তাঁরা না আসায় অনাস্থা কক্ষে ঢোকেননি।

রাজ্য পুর আইন অনুযায়ী, যে পক্ষ অনাস্থা আনবে, তাকেই সেই অনাস্থা প্রমাণ করতে হবে। মঙ্গলবার সেই সময়সীমা ছিল বিকেল তিনটে পর্যন্ত। কিন্তু ওই সময়ের মধ্যে বিজেপি কাউন্সিলররা অনাস্থা প্রক্রিয়ায় অংশই নেননি। ফলে কার্যত অনাস্থা প্রক্রিয়াই ভেস্তে গিয়েছে, যার অর্থ, ক্ষমতা পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই। অনাস্থা প্রমাণ করতে পারেনি বিজেপি। এমনটাই দাবি তৃণমূলের।

যদিও বিজেপি দাবি করেছে, বনগাঁ পুরসভা তাঁদেরই দখলে। পুরসভার চেয়ারম্যান শঙ্কর আঢ্য বলেন, ‘‘বিকেল ৩টে পর্যন্ত সময়সীমা ছিল। কিন্তু এক্সিকিউটিভ অফিসার তার পরও আরও আধঘণ্টা অর্থাৎ সাড়ে তিনটে পর্যন্ত অপেক্ষা করেন।  অনাস্থার পক্ষে কেউ আসেননি। স্বাভাবিক ভাবেই আমরা ক্ষমতা ধরে রাখতে পেরেছি।’’

কিন্তু নাটকে এখানেই যবনিকা পড়েনি। বিজেপি আবার পাল্টা দাবি করেছে, তাঁরা অনাস্থায় জয়ী হয়েছে। এবং আইন মেনেই তা হয়েছে। কী ভাবে? কাউন্সিলরদের দাবি, সাড়ে তিনটে নাগাদ তাঁরা এক্সিকিউটিভ অফিসারের ঘরে গিয়েছিলেন। অনাস্থার পক্ষে তাঁদের দলের ১১ কাউন্সিলর ভোট দিয়েছেন। অনাস্থার বিপক্ষে কেউ ছিলেন না। ফলে ১১-০ ব্যবধানে জিতে তাঁরা বনগাঁ পুরসভায় জয়ী হয়েছে।

ভোটাভুটিতে অংশ নেবে না বলেই জানিয়ে দিয়েছিল সিপিএম। অর্থাৎ হাউসে উপস্থিত কাউন্সিলরদের সংখ্যা দাঁড়ায় ২১। উপস্থিতির ভিত্তিতে ম্যাজিক ফিগার দাঁড়ায় ১১। সেই সূত্রেই বিজেপিও পুরসভা দখলের দাবি করেছে।

ভিতরে যখন এই অনাস্থা ঘিরে এই চরম টানপড়েন চলছে, বাইরে তখন তুমুল অশান্তি। বিজেপি কর্মী সমর্থকরা দফায় দফায় বিক্ষোভ, জমায়েত শুরু করেন। পুলিশও মাঝে মধ্যেই তাঁদের দিকে লাঠি উঁচিয়ে তেড়ে গিয়ে নিরস্ত করার চেষ্টা করেন। কিন্তু সাড়ে তিনটে নাগাদ তৃণমূল পুরসভা দখলের দাবি করতেই পরিস্থিতি কার্যত অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। বিজেপি কর্মীরা পুরভবন চত্বরের দোকানপাট এবং কার্যত সামনে যা পান, তাই ভাঙচুর করতে শুরু করেন। পুলিশ-র‌্যাফের সামনেই ছোড়া হয় বোমা। বেশ কিছুক্ষণ এই উত্তেজনা চলার পর পুলিশ ও র‌্যাফ মৃদু লাঠিচার্জ করে সরিয়ে দেয়। যদিও তার পরও পরিস্থিতি পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসেনি। গোটা এলাকায় এখনও উত্তেজনা রয়েছে।

আরো পড়ুন

ভূমিকম্পের ফলে প্রায় ২০ ফুট পশ্চিমে সরে গিয়েছে তুরস্ক!

By Bitan Ghosh - 9th February, 2023

ভূমিকম্পের কারণে অ্যানাটোলীয় এবং আরবীয় টেকটনিক প্লেটের মধ্যে ২২৫ কিলোমিটার দীর্ঘ চ্যুতিরেখা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আরো পড়ুন

উত্তরপত্রে ‘গুপ্ত সঙ্কেত’ ব্যবহার করে দুর্নীতি চালত মানিক-কুন্তল !

By Arunabha Pradhan - 8th February, 2023

প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষার উত্তরপত্র বা ওএমআর শিটে ‘গুপ্ত সঙ্কেত’ ব্যবহার করে চলত দুর্নীতি! আরো পড়ুন

মাধ্যমিক: চলবে অ্যাপের মাধ্যমে নজরদারি

By Aparna Sen Gupta - 7th February, 2023

মাধ্যমিক পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস থেকে গণ টোকাটুকির অভিযোগ উঠেছে অনেক বারই। আরো পড়ুন

আজ থেকে রাজ্য়ে শীত থাকবে আরও ৫ দিন

By Dibyendu - 2nd February, 2023

পাঁচ দিনের মিনি শীতের স্পেল শুরু হয়ে গেল বৃহস্পতিবার থেকে। আরো পড়ুন

পাকিস্তানের পেশোয়ারে মসজিদে বিস্ফোরণ, প্রচুর মৃত্যু

By Dibyendu - 30th January, 2023

পাকিস্তানের পেশোয়ারে ভয়াবহ বিস্ফোরণ। আরো পড়ুন

‘শহরের হুক্কা বার বন্ধ করা যাবে না’

By Dibyendu - 24th January, 2023

কলকাতা এবং বিধাননগর এলাকায় কোনও হুক্কা বার বন্ধ করা যাবে না— জানিয়ে দিল কলকাতা হাই কোর্ট। আরো পড়ুন

পঞ্চায়েত ভোটের আগে সচিব পর্যায়ে রদবদল!

By Dibyendu - 17th January, 2023

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বেশ কয়েকটি দফতরের সচিব পর্যায়ে রদবদল ঘটানো হয়েছে। আরো পড়ুন

জঙ্গিপুরের তৃণমূল বিধায়ক জাকির হোসেনের বাড়ি থেকে মিলল কোটি কোটি টাকা!

By Dibyendu - 12th January, 2023

কুবেরের ধন মিলল রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা জঙ্গিপুরের তৃণমূল বিধায়ক জাকির হোসেনের বিড়ি কারখানা, গুদাম এবং চালকল থেকে। আরো পড়ুন

যোশীমঠে গৃহহীনদের আর্থিক ক্ষতিপূরণের ঘোষণা

By Dibyendu - 11th January, 2023

যত সময় গড়াচ্ছে ততই বিপদ বাড়ছে উত্তরাখণ্ডের (Uttarakhand) যোশীমঠে (Joshimath)। আরো পড়ুন

শীতের আমেজ কমছে রাজ্যে!

By Dibyendu - 22nd December, 2022

শুক্র, শনি, রবি, সোম এই চারদিনে চার ডিগ্রি পর্যন্ত বাড়তে পারে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। আরো পড়ুন

News Hut
www.webhub.academy